ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায়।

আসসালামু আলাইকুম। আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায়। আপনি যদি ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে চান কিন্তু ভিডিও বানাতে পারেন না বা চাচ্ছেন না। তাহলে আপনি এই পোষ্ট টি পড়ুন তাহলে বেস কিছু উপায় জানতে পারবেন।

ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম

ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম

ইউটিউব ভিডিও এডিটিং করে ইনকাম।

আপনি যদি একজন ফ্রীলেন্সার হিসেবে কাজ করতে চান ভিডিও এডিটিং এর কাজ করতে পারেন। দিন দিন youtube কিংবা ফেসবুকের ভিডিওর চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। মানুষ এখন টেলিভিশনের চাইতে এসব সোশ্যাল মিডিয়া বেশি ব্যবহার করছে। ভিডিওর চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে ভিডিও এডিটরের চাহিদা ও বৃদ্ধি পাচ্ছে। আপনি যদি একজন ভালো ভিডিও এডিটর হন তাহলে আপনার কাজ পেতে খুব একটা কষ্ট করতে হবে না। আপনি যদি একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে ভিডিও এডিটরের কাজ করতে চান। তাহলে ভিডিও এডিটরের বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয়ে জানা শুরু করুন এবং এই বিষয়ে অভিজ্ঞতা অর্জন করুন।

লাইভ স্ট্রিমিং করে ইনকাম করুন।

যারা ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে চান কিন্তু ভিডিও না বানিয়ে তাদের জন্য এটা অনেক ভালো একটা মাধ্যম। এই মাধ্যম ব্যবহার করে আপনি শুধু ইউটিউব নয় ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন। তবে এটা মোবাইল দিয়ে খুব একটা কাজ করে না যদিও করা যায় কিন্তু কম্পিউটার থাকলে খুব ভালোভাবে করা যায়। আপনারা চাইলে খেলাধুলা লাইভ ইউটিউব কিংবা ফেসবুকে প্রচার করতে পারে। যেদিন খেলা হয় আপনি ইউটিউব কিংবা ফেসবুক এ স্কল করলে আপনি দেখতে পাবেন অনেক চ্যানেল এ খেলা এডিট করে লাইভ করছে। আপনি যদি এই কাজটা শিখতে চান এক ঘন্টার মধ্যে শিখতে পারবেন। আপনি যদি লাইভ ভিডিও গুলো দেখেন তাহলে দেখতে পাবেন এই ভিডিও গুলো তে অনেক ভিউ হয়। তবে ভালো করে লাইভ করতে হবে যাতে কপি রাইট না আসে। এজন্য আগে কাজ শিখে তারপর এই মেথড ব্যাবহার করবেন।

এআই দিয়ে ভিডিও বানিয়ে ইনকাম।

বর্তমান সময়ে মানুষ এর অনেক কাজ সহজ করে দিচ্ছে এআই। অনেক চ্যানেল আছে যারা এআই দিয়ে ভিডিও বানিয়ে ইনকাম করছে। এআই দিয়ে কার্টুন ভিডিও বানিয়ে ইনকাম করা যায়। এছাড়াও অনেক ধরনের ভিডিও আছে যেগুলো অনেক ওয়েবসাইট এর মাধ্যেমে তৈরি করা যায়। আপনি এই ভিডিও গুলো ফেসবুক ও ইউটিউব এ আপলোড রে ইনকাম করতে পারবেন। আপনাকে প্রথম এ কিভাবে ভিডিও তৈরি করতে হয় সেটা শিখতে হবে। আপনারা যারা নিজেরা ভিডিও তৈরি করেন তারা ও এআই ব্যাবহার করে এডিট করতে পারেন। এআই ব্যাবহার করে ভয়েস ক্লিয়ার করা সহ অনেক কাজ খুব কম সময়ে করা যায়। আপনি যদি এআই দিয়ে ভিডিও বানাতে চান তাহলে আপনারা প্রথমে এই কাজ শিখুন। কিছু ভিডিও দেখলে আপনাদের ধারনা হয়ে যাবে এই কাজটা আপনার জন্য কতটা পারফেক্ট। তারপর আপনি সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। আপনি যদি ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে এটা আপনার জন্য অনেক ভালো একটা চয়েস হতে পারে।

ইউটিউব ভিডিও গেমস খেলা লাইভ করে ইনকাম।

আমাদের মধ্যে অনেকে আছে ভিডিও না করলেও গেম খেলতে পছন্দ করে। আপনারা চাইলে আপনাদের খেলা গেম গুলো লাইভ স্ট্রিম করতে পারেন অথবা ভিডিও করে পরবর্তীতে আপলোড করতে পারেন। সেখানে আপনি আপনার ভয়েস ব্যবহার করতে পারেন। আপনার ভিডিও চাইলে ব্যবহার করতে পারেন নাও করতে পারেন। অনেক মানুষ এই ভিডিওগুলো দেখে এগুলো তে অনেক ভিউ আসে আপনারা চাইলে এই ক্যাটাগরি নিয়ে কাজ করতে পারেন।

ভিডিও এডিটিং ও রি আপলোড।

আপনারা চাইলে সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া ক্রিকেট কিংবা ফুটবল ম্যাচের ভিডিও রি আপলোড করতে পারেন। এছাড়াও অনেক চ্যালেন আছে যেই চ্যানেলগুলোর ভিডিও পপুলার হয় আপনারা চাইলে সেই ভিডিওগুলো ডাউনলোড করে এডিট করে আপলোড করতে পারেন। কিছু কিছু চ্যানেল রয়েছে যেই চ্যানেলের ভিডিও যদি আপনি রে আপলোড করেন তারা আপনাকে কপিরাইট দিবে না। তারপরও আপনি এমন ভাবে এডিট করার চেষ্টা করবেন যাতে কপিরাইট না আসে। এভাবে কাজ করলে কিন্তু অনেক ভিউ পাওয়া যাবে এবং আপনারা খুব সহজে মনিটাইজেশন করে ইনকাম করতে পারবেন।

ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম

শর্ট ভিডিও আপলোড করে ইনকাম।

আপনারা ভিডিও এডিট করেন কিংবা রি আপলোড করেন যেইটাই করেন না কেন আপনাদের জন্য বেটার হবে যদি আপনারা শর্ট আপলোড করেন। বর্তমানে লম্বা ভিডিও চাইতে ছোট ভিডিওগুলোতে ভিউ বেশি আসতেছে এবং কপিরাইট আসার সম্ভাবনা অনেক কম থাকবে। আপনারা যদি শর্ট ভিডিও আপলোড করেন সে ক্ষেত্রে আপনাদের ভিডিও এডিট করতেও সময় কম লাগবে এবং আপনারা নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে পারবেন। আপনি চাইলে যে কোন একটা ক্যাটাগরির ভিডিও নিয়ে কাজ করতে পারেন অথবা চাইলে মাল্টিপল ক্যাটাগরি নিয়ে কাজ করতে পারেন। ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার জন্য শর্ট অনেক ভালো একটা চয়েস হতে পারে।

ধাঁধা ভিডিও বানিয়ে ইনকাম।

ধাঁধা ভিডিও বানিয়ে কিন্তু আপনি ইউটিউব বা চাইলে ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন। অনেকে বলতে পারেন যে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম এর পোস্টে এই পদ্ধতি কেন শেয়ার করছে । আসলে এখানে আপনি চাইলে নিজের ভয়েজ কিংবা ফেস দেখানো ছাড়াই শুধুমাত্র কিছু এডিটিং এর কাজ করি একটা ভিডিও আপলোড করতে পারবেন। এটা মূলত অনেকটা ভিডিও না বানানোরই মতো শুধুমাত্র এডিটিং এর কাজ আপনাকে করতে হবে। সো এইটুকু কার যদি আপনি না করেন তাহলে তো আপনার ইনকাম হচ্ছে না কোন ভাবেই।

ভিডিও না বানানো বলতে বোঝানো হচ্ছে যে আপনার নিজের ফেস কিনবা নিজের বয়স দেওয়া ছাড়া আপনারা খুব সহজে কিভাবে ইনকাম করতে পারেন। কিভাবে ধাঁধার ভিডিও বানাতে হয় আপনারা চাইলে সেই ভিডিওগুলো ইউটিউবে দেখে শিখে নিতে পারেন। তাহলে আপনারা এই কাজগুলো করে ইনকাম করতে পারবেন।

ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার জন্য শর্ট পদক্ষেপ।

আপনাদের ইউটিউব এ একটি চ্যানেল ও ফেসবুক এ একটি পেজ তৈরি করতে হবে।

ইউটিউব: https://www.youtube.com/
ফেসবুক: https://www.facebook.com/

আশা করি আপনারা বিষয়টা বুঝতে পারতেছেন যে নিজে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম কিভাবে করা যায়। আপনারা চাইলে শুধু মনিটাইজেশন ছাড়াও একাধিক ক্যাটাগরি থেকে ইনকাম করতে পারবেন। এফিলিয়েট মার্কেটিং কিংবা প্রমোশনের মধ্যে অন্যতম। যাদের এভাবে কাজ করার আগ্রহ রয়েছে তারা চাইলে এখনি কাজ শুরু করতে পারেন। ধন্যবাদ সবাইকে।

Read More: অনলাইন ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট

Keyword: ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম, ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম, ইউটিউব থেকে আয় করার ৫টি উপায়, ইউটিউব থেকে আয় করার ১২ পদ্ধতি, ইউটিউবে ভিডিও দেখে ইনকাম, ভিডিও কন্টেন্ট তৈরি, ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম,

Leave a Comment